ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার ক্যারিয়ার – চাকরি এবং অন্যান্য | WordPress Developer

ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার

ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার / WordPress Developer – ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপাররা বিভিন্ন ওয়েব অ্যাপ্লিকেশনগুলির ডিজাইন করতে এবং তৈরি করতে ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করেন যা কিনা একটি অনলাইন কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপাররা ওয়ার্ডপ্রেসের জন্য কাস্টম প্লাগইন, মডিউল এবং থিম তৈরি করতে সক্ষম। প্রথাগত ওয়েব ডেভেলপারদের বিপরীতে ওয়ার্ডপ্রেস চালিত ওয়েবসাইটগুলোর জন্য তারা ইন্টিগ্রেশন এবং প্লাগইন বিকাশে কাজ করে থাকেন। ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপাররা ওয়ার্ডপ্রেস সাইটগুলির ফ্রন্ট এন্ড এবং ব্যাক এন্ড উভয়ই ডিজাইনের জন্য দায়বদ্ধ। এছাড়া ব্যবসায়ের ক্রমবর্ধমান চাহিদার ভিত্তিতে ওয়েবসাইটগুলির জন্য ফিচার আপডেট করে থাকেন। কোনও ওয়েবসাইট কোডিং এবং এরপর ইউজার ইন্টারফেস ডিজাইনের কাজটিও তারা করে থাকেন।

ওয়ার্ডপ্রেস কি এবং কেন এত জনপ্রিয়

ওয়ার্ডপ্রেস হল বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় ওপেন সোর্স কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম যা PHP দ্বারা চালিত। এর মাধ্যমে আপনি যে কোনও ধরণের ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। ইন্টারনেটে সমস্ত ওয়েবসাইটের ৩৬% এরও বেশি তৈরি হয়েছে ওয়ার্ডপ্রেস দ্বারা। এর কারণ হল ওয়ার্ডপ্রেসের সহজবোধ্যতা এবং ইউজার ফ্রেন্ডলি ফিচার। এতে সহজেই বিভিন্ন ফিচার জুড়ে দেয়া যায়। বিশ্বজুড়ে এমন মিলিয়ন মিলিয়ন ওয়েবসাইট রয়েছে যারা ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে অর্থোপার্জন করছে যার ফলে হাজার হাজার কাজের সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে।

WooCommerce নামে পরিচিত সর্বাধিক জনপ্রিয় ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মটিও তৈরি হয়েছে ওয়ার্ডপ্রেস এর মাধ্যমে। এটি ব্যবহার করে আমাদের দেশসহ সারা বিশ্ব জুড়ে লক্ষ লক্ষ ছোট এবং বড় অনলাইন স্টোরগুলোও তৈরি হচ্ছে।

ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার / WordPress Developer

পেশা হিসেবে ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার নিয়ে কিছু তথ্য

পদের নাম– ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার

জবের ক্ষেত্র- সরকারি / বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, ফ্রিল্যান্সিং

জবের ধরন- পার্ট টাইম, ফুল টাইম

অভিজ্ঞতা- কাজ এবং প্রতিষ্ঠানের উপর নির্ভর করে।

এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য আয়- প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে মাসিক ২০-২৫ হাজার টাকা হতে পারে। ফ্রিল্যান্সিং এর ক্ষেত্রে ঘণ্টায় ১০-১২ ডলার হতে পারে।

যোগ্যতা- ওয়ার্ডপ্রেসের উপর টেকনিক্যাল দক্ষতা, প্রজেক্ট মেনেজম্যান্ট স্কিল, ক্লায়েন্টকে সার্ভিস দানে দক্ষতা।

একজন ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার কোথায় কাজ করেন

  • সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান কিংবা প্রজেক্টে যেখানে অনলাইন কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্টের কাজ থাকে।
  • বিভিন্ন আইটি ফার্মে
  • বিভিন্ন আউটসোর্সিং প্লাটফর্মে। 

এছাড়া ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করতে পারেন অনলাইন জব মার্কেটে। এর মধ্যে ভাল কিছু মার্কেট প্লেস হল-

  • Upwork.com
  • Freelancer.com
  • Toptal.com
  • Fiverr.com
  • WordPress (https://jobs.wordpress.net/) 
  • WPHired (http://www.wphired.com/)
  • Peopleperhour.com

ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার-এর প্রাতিষ্ঠানিক যোগ্যতা

WordPress Developer হওয়ার জন্য প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা লাগবেই তেমন কোন কথা নেই। তবে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বা ইনফর্মেশন টেকনোলজিতে ডিগ্রি থাকলে ভাল।

তেমনি ওয়ার্ডপ্রেসের কাজ শেখার ক্ষেত্রেও কোন প্রতিষ্ঠান থেকে করাটাও জরুরি না। কোন প্রতিষ্ঠান বা অনলাইন যেখানেই শিখা হোক না কেন কাজ পাওয়ার জন্য দরকার একটি ভালো পোর্টফোলিও।

কোথায় শিখবেন ওয়ার্ডপ্রেসের কাজ  

ওয়ার্ডপ্রেসের কাজ শিখতে চাইলে আছে বিভিন্ন সোর্স। এর জন্য রয়েছে বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান যেখানে ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপমেন্টের উপর প্রফেশনাল কোর্সের ব্যবস্থা আছে। এছাড়া অনলাইনেও এই বিষয়ে অনেক কোর্স আছে যেমন- ওয়ার্ডপ্রেস কোডেক্স। এর বাইরে প্রফেশনালি কাজ করছেন এমন কারোর কাছ থেকেও শিখে নেয়া যায়। তবে যেখান থেকেই কাজ শিখেন না কেন কাজ পাওয়ার জন্য লাগবে সমৃদ্ধ একটি পোর্টফোলিও।

একজন ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার যেসব দক্ষতা থাকতে হবে

  • HTML / XHTML, CSS, JavaScript
  • সার্ভার আর্কিটেকচার
  • সার্ভার-সাইড ফ্রেমওয়ার্ক – python, ruby, PHP, Java, ASP, ASP.NET
  • ডাটাবেস সিস্টেম – SQL, Oracle
  • সাইবার সিকিউরিটি
  • কোডিং সম্পর্কে কার্যকরী জ্ঞান এবং অভিজ্ঞতা

অন্যান্য যেসব দক্ষতা থাকলে একজন WordPress Developer প্রফেশনালি সফল হতে পারবেন

  • সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশনের বেসিক জ্ঞান।   
  • স্বল্প সময় ও বাজেট নিয়ে ব্যবসায়ের লক্ষ্য অর্জনের মানসিকতা।
  • মাল্টিটাস্ক করার ক্ষমতা।
  • যোগাযোগ দক্ষতা।
  • দল পরিচালনার দক্ষতা।

WordPress Developer-এর দায়িত্ব এবং কাজ

  • ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রেমওয়ার্ক দ্বারা চালিত ওয়েবসাইট এবং ওয়েব অ্যাপ্লিকেশনগুলি তৈরি করে, আপডেট করে এবং পরিচালনা করে।
  • বর্তমান ওয়েবসাইটগুলির জন্য নতুন ফাংশন বিকাশ, ক্লায়েন্টদের জন্য ওয়ার্ডপ্রেস প্রশিক্ষণ পরিচালনা এবং মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনগুলির জন্য ইন্টারফেস এবং ভিজ্যুয়াল তৈরি করা।
  • ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপাররা গ্রাফিক ডিজাইনারদের মতো সহকর্মীদের সাথে সাইটগুলি সুবিন্যস্ত এবং ব্যবহারকারী-বান্ধব নিশ্চিত করার জন্য সহযোগিতা করা।  
  • কোনও ওয়েবসাইটের ফ্রন্ট এন্ড এবং ব্যাক এন্ড তৈরি করা।
  • একটি ওয়েবসাইটের কাঠামো ডিজাইন করা।
  • ওয়ার্ডপ্রেস থিম তৈরি বা আপডেট করা।
  • ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইনগুলি বিকাশ বা কনফিগার করা।
  • এ/বি টেস্ট পরিচালনা করা।
  • কোনও ওয়েবসাইটের পারফর্মেন্স পর্যবেক্ষণ করা।
  • ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কিত সমস্যা সমাধান করা।
  • কোডশপে ওয়ার্ডপ্রেসকে ব্যবহার করে এবং ফটোশপ লেআউটের মাধ্যমে সাইট আর্কিটেকচার তৈরি এবং পরীক্ষা করা।
  • প্রকল্পের সম্পর্কে ক্লাইন্টের চাহিদা নিয়ে আলোচনার জন্য যোগাযোগ রক্ষা করা।
  • ক্লায়েন্টদের ওয়েবসাইটের বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করা এবং টেকনিক্যাল সাপোর্ট দেয়া।

কেমন হতে পারে আয়

আমাদের দেশে স্বল্প অভিজ্ঞতার একজন ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপারের কোন প্রতিষ্ঠানে চাকরির ক্ষেত্রে শুরুতে বেতন হতে পারে ২০,০০০ টাকা। কিন্তু অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা বৃদ্ধির সাথে সাথে তা ১-২ লাখ টাকা পর্যন্ত বাড়তে পারে।

এছাড়া ফ্রিল্যান্সিং-এর ক্ষেত্রে অনলাইন মার্কেটপ্লেসে একজন এন্ট্রি লেভেলের ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার ঘণ্টায় ১০-১২ ডলার রেটে কাজ করতে পারেন। অনেক অভিজ্ঞ ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার আছেন যারা আন্তর্জাতিক মার্কেটপ্লেসগুলোতে ঘণ্টায় ৩০ থেকে ৪০ ডলার রেটে কাজ করেন।

ক্যারিয়ার হিসেবে WordPress Developer

ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপমেন্ট এমন একটি ক্ষেত্র, যেখানে দক্ষতা থাকলে কাজের কোন অভাব হবে না, সে দেশেই হোক আর বিদেশে। বর্তমানে ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে বিশাল কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান সকলেই ওয়েবসাইট তৈরি করছে যার কারণে ওয়ার্ডপ্রেস কাজ বেড়েই চলেছে। বর্তমানে বাংলাদেশের প্রায় সকল ওয়েব ডেভেলপমেন্ট কোম্পানিতে দক্ষ ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপারদের ব্যাপক চাহিদা। এছাড়া গ্রাফিক ডিজাইন এজেন্সি, মার্কেটিং ফার্ম বা কম্পিউটার সিস্টেম ডিজাইন ফার্মগুলোতেও চাকরির সুযোগ আছে।

ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসগুলোতেও রয়েছে ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপমেন্টের প্রচুর কাজ এবং ভাল পারিশ্রমিকে। বিভিন্ন ওয়েব ডেভেলপমেন্ট ফার্মগুলোতেও দেশের বাইরে থেকে ওয়ার্ডপ্রেসের প্রচুর কাজ আসে।

এছাড়াও একজন ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার চাইলে নিজে প্রডাক্ট তৈরি করেও আন্তর্জাতিক বাজারে বিক্রি করতে পারেন। উদাহরণসরূপ বলা যায় ওয়ার্ডপ্রেস থিমের কথা। জনপ্রিয় ওয়ার্ডপ্রেস থিমগুলো আন্তর্জাতিক বাজারে অসংখ্যবার বিক্রি হচ্ছে এবং এ থেকে প্রচুর আয় হচ্ছে।

ট্যাগসমুহ

ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার, WordPress Developer, ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার ক্যারিয়ার, wordpress developer resume, wordpress developer profile, wordpress developer job description, wordpress developer skills, required wordpress developer, wordpress developer jobs