পলিটেকনিক ভর্তি : চান্স প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের জন্য গুরত্বপূর্ণ কিছু তথ্য

পলিটেকনিক ভর্তি – পলিটেকনিক ভর্তির ফলাফল প্রকাশের পর যারা চান্স পেয়েছেন এবং যারা ওয়েটিং-এ আছেন সবারই কয়েকটি বিষয় জেনে রাখাটা জরুরি। তাহলে পরবর্তি পদক্ষেপ কি হতে পারে বা কোন সিদ্ধান্তটা সঠিক হবে তা বুঝাটা সহজ হয়। চলুন এরকম কিছু ব্যাপার জেনে আসা যাক।

মাইগ্রেশন

ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ভর্তি পরীক্ষার রেজাল্ট প্রকাশিত হয় বেশ কয়েকটি পর্যায়ে। এর মধ্যে যারা প্রথমবারে চান্স পায় তাদের মধ্যে অনেকেই পছন্দের ডিপার্টমেন্ট পেলেও পছন্দের ইন্সটিটিউট পায় না। আবার অনেকেই পছন্দের ইন্সটিটিউট পেলেও ডিপার্টমেন্ট পায় না। এর মধ্যে যারা পছন্দের ডিপার্টমেন্ট পেয়ে যায় তাদের জন্য মাইগ্রেশনের অপশনটি বন্ধ করে দেয়া হবে বুদ্ধিমানের কাজ। কারণ পরবর্তিতে পছন্দের ইন্সটিটিউট পেলেও ডিপার্টমেন্ট পাবে কিনা সে নিশ্চয়তা নাই। তাই মাইগ্রেশন অফ করে ভর্তি নিশ্চায়ন করে ফেলাই ভালো। অপর দিকে যারা পছন্দের ডিপার্টমেন্ট পায়নি তাদের জন্য মাইগ্রেশন একটি ভাল সুযোগ। কারণ কোন প্রতিষ্ঠানে পড়ছেন এটার চেয়ে কোন ডিপার্টমেন্টে পড়ছেন – এটা বেশি গুরত্বপূর্ণ। মাইগ্রেশন অন থাকলে পরবর্তিতে আপনার পছন্দের ডিপার্টমেন্টে সুযোগ পেয়ে যেতে পারেন আপনি। মাইগ্রেশন নিয়ে আরও বিস্তারিত জানতে দেখুন এই লেখাটি

অটোমাইগ্রেশন / Auto Migration কি? যেভাবে অন / অফ করবেন

পলিটেকনিক ভর্তি নিশ্চায়ন

ভর্তি নিশ্চায়নের পদ্ধতিটি বেশ সহজ। ভর্তিচ্ছুরা যেখান থেকে ভর্তির ফলাফল দেখতে পাচ্ছে সেখানেই ভর্তি নিশ্চায়নের নীতিমালা নিয়ে একটি লিঙ্ক আছে। সে লিঙ্কে প্রবেশ করলেই ভর্তি নিশ্চায়ন পদ্ধতি সম্পর্কে জানা যাবে।

তবে ভর্তি নিশ্চায়ন মানে কিন্তু ভর্তি হয়ে যাওয়া নয়। এটি অনেকটা বুকিং দেয়ার মত। আপনি যে ইন্সটিটিউটে যে ডিপার্টমেন্টে চান্স পেয়েছেন ভর্তি নিশ্চায়ন ফি দেয়ার মাধ্যমে আপনি সেটা নিজের জন্য বরাদ্ধ করে রাখলেন, ব্যাপারটা অনেকটা এরকম। পরবর্তিতে সেই ইন্সটিটিউটে গিয়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ নির্দিষ্ট পরিমাণ ফি জমা দিলেই কেবল ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়।

অপেক্ষমাণ তালিকা

ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং-এর ফলাফল পর্যায়ক্রমে পাঁচ বার দেয়া হতে পারে। সুতরাং যারা প্রথমবারে ওয়েটিং লিস্টে আছেন, তাদের আরও চার বার সুযোগ আসতে পারে। এই কারণে যারা ওয়েটিং লিস্টে আছেন তাদের মাইগ্রেশন অন থাকলে পরবর্তিতে নিজের পছন্দের ডিপার্টমেন্ট অথবা ইন্সটিটিউটে চান্স পেতে পারে।

ট্যাগ

পলিটেকনিক ভর্তি, DIPLOMA ADMISSION, Waiting list, পলিটেকনিক ভর্তি ২০২১, পলিটেকনিক, পলিটেকনিক চান্স, polytechnic vorti, polytechnic admission, অপেক্ষামান তালিকা, পলিটেকনিক রেজাল্ট প্রকাশ, ওয়েটিং লিস্ট, ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং, ডিপ্লোমা ভর্তি ২০২১

Related

কারিগরি শিক্ষার্থীদের বেকারত্ব এড়াবার মন্ত্র | Technical students

কারিগরি শিক্ষার্থীদের বেকারত্ব - বাংলাদেশে প্রধান প্রধান আর্থসামাজিক সমস্যাগুলোর...

বেসরকারি পলিটেকনিক – এ পড়ার সুবিধা অসুবিধা

বেসরকারি পলিটেকনিক - পলিটেকনিকে পড়তে ইচ্ছুকরা সবাই কিন্তু সরকারি...

পলিটেকনিক ভর্তি বাতিল প্রক্রিয়া

পলিটেকনিক ভর্তি বাতিল - ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং-এ ভর্তির পর অনেকেই...

অটোমাইগ্রেশন / Auto Migration কি? যেভাবে অন / অফ করবেন

অটো মাইগ্রেশন / Auto Migration - পলিটেকনিকে ভর্তির ক্ষেত্রে...

সরকারী পলিটেকনিকে ভর্তির সুযোগ না হলে করনীয়

সরকারী পলিটেকনিকে সুযোগ না হলে - অনেকেরই এসএসসির পর...
error: Content is protected !!