Electrician as Career | ক্যারিয়ার হিসেবে ইলেকট্রিশিয়ানঃ চাকরি এবং অন্যান্য

Electrician

Electrician / ইলেকট্রিশিয়ান – একজন Electrician মূলত বাড়িঘর, ব্যবসায় এবং কারখানার জন্য প্রয়োজনীয় বৈদ্যুতিক এবং বিদ্যুৎ সিস্টেম ইনস্টল করেন এবং এর রক্ষণাবেক্ষণ করেন। এছাড়া বৈদ্যুতিক ওয়্যারিং ইনস্টলেশন থেকে শুরু করে পুরানো সিস্টেম মেরামত করা, রুটিন রক্ষণাবেক্ষণের মত কাজগুলোও করে থাকেন। তাদের দায়িত্বের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ইকুইপমেন্টের ক্যালিব্রেটিং, বৈদ্যুতিক সিস্টেম পরীক্ষা করা, বিদ্যমান ওয়্যারিং সিস্টেমের আপগ্রেড করা, বৈদ্যুতিক ডিভাইসের সমস্যা সমাধান করা এবং ব্লু প্রিন্টগুলি পড়তে পারা ইত্যাদি।

সাধারণ ইলেকট্রিশিয়ানরা বৈদ্যুতিক সিস্টেম নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করলেও, নির্মাণে বিশেষজ্ঞ ইলেকট্রিশিয়ানরা সাধারণত বিভিন্ন কারখানা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং নতুন বাড়ীতে ওয়্যারিং সিস্টেম ইনস্টলের মত কাজ গুলো করেন এবং রক্ষণাবেক্ষণের ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞ ইলেকট্রিশিয়ানরা বিদ্যমান বৈদ্যুতিক সিস্টেম এবং বৈদ্যুতিক সরঞ্জামগুলি মেরামত ও আপগ্রেড করেন।  

কাজের ধরন

অভ্যন্তরীণ ইলেকট্রিশিয়ান- যারা সাধারণত কোন নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠান অথবা ফ্যাক্টরিতে কাজ করেন যেখানে তাদের কাজ মূলত বিভিন্ন বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম, সিস্টেম এবং মোটরের রক্ষণাবেক্ষণ এবং মেরামতের কাজ পরিচালনা করা। এছাড়া ফ্যাক্টরির কোড কন্ডিশন পূরণের জন্য সম্পূর্ণ ওয়্যারিং সিস্টেম আপডেট বা ইনস্টল করা সহ নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণের কাজও করেন। এক্ষেত্রে তারা ঠিকাদার নয় বরং প্রতিষ্ঠানটির কর্মচারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

আবাসিক ইলেকট্রিশিয়ান– এরা কোনও বাড়িতে বিদ্যুৎ ও ওয়্যারিংয়ের সমস্যা সমাধানের পাশাপাশি আবাসিক নতুন নির্মাণাধীন ভবনের বৈদ্যুতিক সিস্টেম তৈরির কাজ করে থাকেন।  এক্ষেত্রে একজন ইলেকট্রিশিয়ান কোন কন্সট্রাকশন কোম্পানির অধীনে বা বৈদ্যুতিক ঠিকাদার হিসেবে কাজ করতে পারেন।

টেলিকমিউনিকেশন ইলেকট্রিশিয়ান-  এই ক্ষেত্রে ইলেকট্রিশিয়ানরা বিভিন্ন ধরনের কমিউনিকেশন যেমন- ফোন, কম্পিউটারের ল্যান ওয়্যারিং প্রভৃতির জন্য প্রয়োজনীয় কেবল এবং সিস্টেম স্থাপন, ইনস্টল এবং মেরামতের কাজ করে থাকেন। এই ক্ষেত্রে তারা কাজ করেন হয় ব্যবসাকেন্দ্রিক বা সরকারী চুক্তির অধীনে।  

একজন ইলেকট্রিশিয়ান অভ্যন্তরীণ নাকি আবাসিক বৈদ্যুতিক কাজ করতে চান এটি নির্ভর করে তিনি কোনও কোম্পানির কর্মচারী হিসাবে কাজ করতে চান নাকি স্বাধীন উদ্যোক্তা হিসাবে একেক জায়গায় কাজ করতে চান।

একজন ইলেকট্রিশিয়ান সম্পর্কে কিছু তথ্য

  • কাজের ধরন– ইলেকট্রিক টেকনিশিয়ান
  • শিক্ষাগত যোগ্যতা – এস,এস,সি (ভোকেশনাল), এইচএসসি (ভোকেশনাল), ডিপ্লোমা শর্ট কোর্স।
  • অভিজ্ঞতা – এ পেশায় অভিজ্ঞতার মূল্যায়ন বেশি। এন্ট্রি লেভেলে ৪-৬ বছরের অভিজ্ঞতা লাগতে পারে।
  • প্রতিষ্ঠানের ধরন – সরকারি, বেসরকারি, ফ্যাক্টরি, স্ব-উদ্যোগ।
  • এন্ট্রি লেভেলে বয়সসীমা – বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বয়সসীমা নির্ধারন করে দেয়া হয়। এই সীমা সাধারণত ১৮- ৩০ এর মধ্যে হয়ে থাকে।
  • এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য বেতন – মাসিক ১০,০০০ – ১৫,০০০ টাকা বা এর কম – বেশি ও হতে পারে।
  • কারিগরি দক্ষতা – বিভিন্ন ইলেকট্রিক ইকুইপমেন্ট এবং সমস্যা সংক্রান্ত জ্ঞান, ব্লু প্রিন্ট এবং ডায়াগ্রাম পড়তে জানা।
  • অন্যান্য দক্ষতা – সমস্যা সমাধানে পারদর্শিতা, ধৈর্য্য।  

একজন ইলেকট্রিশিয়ান যেসব কাজ করেন

  • নতুন ভবন নির্মানে বৈদ্যুতিক ওয়্যারিংয়ের সর্বোত্তম প্লেসমেন্টের জন্য স্থপতি এবং প্রকৌশলীদের সাথে সমন্বয় রক্ষা করা।
  • বিদ্যমান ওয়্যারিং এর সুরক্ষা এবং মান নিয়ন্ত্রণ পরীক্ষা করা।
  • রাষ্ট্রের নির্ধারিত সমসাময়িক কোড এবং সেফটি রেগুলেশন অনুযায়ী পুরানো বৈদ্যুতিক সিস্টেমগুলি আপডেট করা।
  • ভাঙা সরঞ্জাম মেরামত করা এবং বিদ্যুত সরবরাহের আপডেটেড পদ্ধতির বিষয়ে পরামর্শ দেওয়া।
  • পরিবেশ-বান্ধব প্রযুক্তির মান নিশ্চিতের জন্য বিদ্যমান বৈদ্যুতিক সিস্টেমগুলিকে সংশোধন করা।
  • একটি সিস্টেমে কোথায় প্যানেল বোর্ড, সার্কিট, আউটলেট এবং অন্যান্য বৈদ্যুতিক উপাদান থাকতে পারে বা বসানো প্রয়োজন তা বোঝার জন্য ব্লু প্রিন্ট পড়তে জানা।

একজন ইলেকট্রিশিয়ানের যেসকল দক্ষতা থাকতে হয়

  • টেকনিক্যাল সমস্যার কারণ নির্ধারণ এবং সেগুলির সমাধান বের করা।
  • মেশিন বা সিস্টেমের মেরামত।
  • বিভিন্ন সরঞ্জামাদি, মেশিন, ওয়ারিং প্রোগ্রামগুলি ইনস্টল করা।
  • সংশ্লিষ্ট পণ্যের তদারকি ও মান মূল্যায়ন করা।
  • রুটিন ভিত্তিতে ইকুইপমেন্ট রক্ষণাবেক্ষণ করা। কখন এবং কী ধরনের রক্ষণাবেক্ষণের প্রয়োজন তা নির্ধারণ করা।
  • কোনও কাজ করার জন্য প্রয়োজনীয় টুল এবং ইকুইপমেন্ট বাছাই করা।
  • বিভিন্ন ইকুইপমেন্ট পরিচালনা এবং নিয়ন্ত্রণ করা।
  • কোনও মেশিন সঠিকভাবে কাজ করছে কিনা তা নিশ্চিত করতে গজ, ডায়াল এবং আউটপুটের রিডিং পড়তে পারা।

যেসব প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন

  • বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন সহ সরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে।
  • বেসরকারি প্রতিষ্ঠান।
  • বৈদ্যুতিক ঠিকাদার এবং অন্যান্য ওয়্যারিং ইনস্টলেশন ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানে।
  • উৎপাদন কারখানা বা ফ্যাক্টরিতে।
  • ইলেকট্রনিক্স কোম্পানি।
  • আত্ম – কর্মসংস্থান।

ইলেকট্রিশিয়ানদের কাজ শিখানো হয় যেসব প্রতিষ্ঠানে

  • বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড এবং যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের অধীনে বিভিন্ন জেলা ভিত্তিক প্রতিষ্ঠানে ইলেক্ট্রিশিয়ান হওয়ার জন্য এসএসসি (ভোকেশনাল) এবং ডিপ্লোমা কোর্স করা যায়।
  • বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও বৈদ্যুতিক কারিগর সংক্রান্ত কোর্স পরিচালনা করা হয়।
  • বর্তমানে ৬৪ টি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এবং কলেজে ৩১ টি ট্রেডে ভোকেশনালে এসএসসি ও এইচএসসি কোর্স পরিচালনা করছে।

এবিসি লাইসেন্স / ABC License

যেকোন কাজ বা চাকরির ক্ষেত্রে সার্টফিকেট একটি ইতিবাচক প্রভাব হিসেবে কাজ করে। ইলেক্ট্রিশিয়ানদের ক্ষেত্রে ABC লাইসেন্স ঠিক তেমন একটি ব্যাপার। বাংলাদেশ সরকারের বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনে বৈদ্যুতিক উপদেষ্টা ও প্রধান বিদ্যুৎ পরিদর্শকের দপ্তর থেকে বৈদ্যুতিক কারিগর ও সুপারভাইজার সনদ এবং ঠিকাদারি লাইসেন্স ইস্যু করা হয় যাকে এবিসি লাইসেন্স বলে। A, B ও C এই তিনটি ক্যাটাগরিতে এই লাইসেন্স দেয়া হয় বলে এর নাম ABC লাইসেন্স। ক্যাটাগরি গুলো হল-

  • C ক্যাটাগরি- ব্যাসিক ইলেকট্রিক কাজের যোগ্যতার জন্য এই সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। যেমন- হাউজ ওয়্যারিং।
  • B ক্যাটাগরি- ব্যাসিক ইলেকট্রিক সহ ইন্ডাস্ট্রিয়াল কন্ট্রোলের কাজের জন্য এই সার্টিফিকেট দেয়া হয়। যেমন – মোটর।
  • A ক্যাটাগরি – এই সার্টিফিকেটটি প্রদান করা হয় C এবং B ক্যাটাগরি সহ ওভারহেড লাইনের কাজ যেমন- সাব স্টেশন, ট্রান্সফর্মার, ম্যাগনেটিক কন্ট্যাক্ট প্রভৃতির জন্য।

এই লাইসেন্স অর্জনের জন্য মৌখিক এবং ব্যবহারিক পরীক্ষা দিতে হয়। এই পরীক্ষার জন্য আবেদন করতে হয় বৈদ্যুতিক উপদেষ্টা ও প্রধান বিদ্যুৎ পরিদর্শকের দপ্তরের ওয়েবসাইটে।

ক্যারিয়ার হিসেবে Electrician

উন্নতির সাথে সাথে আমাদের দেশে বিদ্যুতের ব্যবহার যদিও বেড়েই চলেছে কিন্তু সে অনুপাতে দক্ষ ইলেক্ট্রিশিয়ানের সংখ্যা অপ্রতুল। যার কারণে ভাল দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতা থাকলে ভাল ক্যারিয়ার গড়ার উজ্জ্বল সম্ভাবনা আছে। এছাড়া দেশের বাইরে দক্ষ ইলেকট্রিশিয়ানদের বেশ চাহিদা রয়েছে এবং আয়ও তুলনামূলক বেশি। একজন ইলেক্ট্রিশিয়ান চাইলে ইলেকট্রিক সামগ্রী ও অ্যাপ্লায়েন্স বিক্রয় এবং মেরামতের মাধ্যমেও আত্ম কর্মসংস্থান করতে পারেন।

ট্যাগ সমূহ

Electrician, ইলেকট্রিশিয়ান কি, ইলেকট্রিশিয়ান বই, ইলেকট্রিশিয়ান চাকরি, ইলেকট্রিশিয়ান লাইসেন্স, ইলেকট্রিশিয়ান সার্টিফিকেট, ইলেকট্রিশিয়ান পদে নিয়োগ 2020, ইলেকট্রিশিয়ান কোর্স, electrician work, electrician meaning, electrician description, electrician salary, electrician career, electrician job, electrician skills, ইলেক্ট্রিশিয়ান, ABC License

Source: careerki,