Jessore Polytechnic Institute | যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট

Jessore Polytechnic Institute

Jessore Polytechnic Institute / যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট – ১৯৬৫ সালে প্রতিষ্ঠিত এই অগ্রগামী প্রতিষ্ঠানটি দেশের অন্যতম পুরাতন এবং সমৃদ্ধ পলিটেকনিক প্রতিষ্ঠান। শুরুতে মাত্র ৩ টি টেকনোলজি থাকলেও বর্তমানে BTEB পাঠ্যক্রম অনুসারে এখানে ৭ টি অনুষদে ৪ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা কোর্সে শিক্ষাদান হয়ে থাকে।

প্রতিষ্ঠানটি দেশ বিদেশে উচ্চশিক্ষা এবং কর্মক্ষেত্রে মধ্যম মানের দক্ষ প্রকৌশল গড়ে তোলার লক্ষ্যে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। এর লক্ষ্য এমন একটি নামী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট হওয়া যা জাতির বিকাশ এবং দেশের বৃদ্ধি বজায় রাখতে প্রয়োজনীয় জনবল তৈরিতে অবদান রাখতে পারে। এখানে একাডেমিক প্রোগ্রাম গঠনের ক্ষেত্রে বৈশ্বিক এবং সাংস্কৃতিক পরিবর্তনগুলিতে এমন ভাবে বিবেচনা করা হয় যাতে শিল্প ও প্রযুক্তিগত উন্নয়নের সাথে একটি সংযোগ বজায় থাকে।

অন্যান্য সরকারি পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটগুলোর মত যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটও বাংলাদেশ শিক্ষা অধিদপ্তর দ্বারা পরিচালিত বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের (BTEB) কারিকুলাম অনুসারে পরিচালিত একটি কারিগরি ও বৃত্তিমূলক প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটির বর্তমানে প্রায় ৬৭ জন শিক্ষক আছেন। অধ্যক্ষ হিসেবে কর্মরত আছেন ইঞ্জিঃ জিএম আজিজুর রহমান। বর্তমানে দুই হাজারের অধিক শিক্ষার্থী এখানে অধ্যয়নরত আছে।

ইতিহাস

  • ১৯৬৫ সালে Jessore Technical Institute হিসেবে প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হয়। প্রথম বর্ষে সিভিল এবং পাওয়ার এই দুইটি বিষয়ে ৮৩ জন শিক্ষার্থী ছিল।
  • পরবর্তিতে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং যুক্ত হয় এবং প্রতিষ্ঠানটির নাম পরিবর্তিত হয়ে যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট হয়।

Jessore Polytechnic Institute / যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট

অবস্থান

যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট যশোরের কোতয়ালি থানার আওতাধীন শেখহাটিতে অবস্থিত।

যোগাযোগের ঠিকানা

ক্যাম্পাস

Jessore Polytechnic Institute
Jessore Polytechnic Institute প্রশাসনিক ভবন
Jessore Polytechnic Institute
একাডেমিক ভবন
Jessore Polytechnic Institute
মসজিদ
Jessore Polytechnic Institute
খেলার মাঠ
  • ১৫ একর জায়গা নিয়ে অবস্থিত ক্যাম্পাসটিতে রয়েছে ১ টি প্রশাসনিক ভবন, ১ টি একাডেমিক ভবন, দুইটি ড্রইং হল, ২৬ টি ল্যাব এবং ওয়ার্কশপ, ১ টি মসজিদ, শহীদ মিনার, ১ টি মনুমেন্ট, ১ টি অডিটোরিয়াম ভবন, ছাত্র মিলনায়তন, খেলার মাঠ, সাইকেল স্ট্যান্ড, ইলেকট্রিক সাব স্টেশন, মোটর গ্যারেজ, পাম্প হাউজ।
  • আবাসিক সুবিধা হিসেবে রয়েছে শিক্ষার্থীদের জন্য ২ টি আবাসিক হল এবং শিক্ষক এবং কর্মচারিদের জন্য ৬ টি কোয়ার্টার।

ওয়ার্কশপ ও ল্যাবসমূহ

Jessore Polytechnic Institute
ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্ট্মেন্ট
  • মেসন
  • প্লাম্বিং শপ
  • উড শপ
  • সয়েল এন্ড সার্ভে ল্যাব
  • CAD & CAM
  • ড্রয়িং হল (পূর্ব)
  • ড্রয়িং হল (পশ্চিম)
  • সফটওয়্যার ল্যাব
  • হার্ডওয়্যার ল্যাব
  • ডিজিটাল ল্যাব
  • ইলেকট্রিক পাওয়ার শপ
  • ইলেকট্রিক্যাল ওয়্যারিং শপ
  • ইলেকট্রিক্যাল ম্যাগনেটিজম শপ
  • অডিও / ভিজুয়াল ল্যাব
  • ডিজিটাল ইলেকট্রনিক্স ল্যাব
  • ইডিসি ল্যাব
  • মেশিন শপ
  • ওয়েল্ডিং শপ
  • ফাউন্ড্রি শপ
  • মেটাল শপ
  • অটো পাওয়ার শপ
  • ফুয়েল শপ
  • হাইড্রোলিক ল্যাব
  • টেস্টিং ল্যাব
  • ফিজিক্স ল্যাব
  • কেমিক্যাল ল্যাব
  • টেলিকম শপ

ডিপার্টমেন্ট

Jessore polytechnic institute বর্তমানে মোট সাতটি বিষয়ে চার বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা কোর্স চালু রয়েছে। নিচে আসন সংখ্যা সহ বিষয়গুলো দেয়া হল-

  • সিভিল টেকনোলজি (১৫০)
  • ইলেক্ট্রিক্যাল টেকনোলজি (১০০)
  • ইলেকট্রনিক্স টেকনোলজি (৫০)
  • টেলিকমিউনিকেশন টেকনোলজি
  • মেকানিক্যাল টেকনোলজি (১০০)
  • পাওয়ার টেকনোলজি (১০০)  
  • কম্পিউটার টেকনোলজি (১০০)

এছাড়া বিভিন্ন ডিপার্টমেন্ট গুলোর আবশ্যিক বিষয় যেমন- বাংলা, ফিজিক্স, ইংরেজি প্রভৃতি পাঠদানের জন্য রয়েছে নন-টেক ডিপার্টমেন্ট।

ভর্তির যোগ্যতা

এসএসসি, দাখিল, ভোকেশনাল অথবা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে মেধা তালিকা অনুসারে ভর্তি হতে পারবে। তবে আবেদনের যোগ্যতার ক্ষেত্রে উক্ত পরীক্ষায় নূন্যতম জিপিএ ৩.৫ থাকতে হবে। এর মধ্যে ক্যামেস্ট্রি, ফিজিক্স ও ইংরেজিতে কমপক্ষে জিপিএ ৩ পেতে হবে। প্রতি বছর ভর্তি সংক্রান্ত নীতিমালা পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে যা BTEB ওয়েবসাইটে ভর্তির সার্কুলারে বিস্তারিত দেয়া থাকে।

কোটা

এখানে প্রতিটি ডিপার্টমেন্টে আসন সংখ্যার ২০% মহিলা কোটা, ১৫% ভোকেশনাল, ৫% প্রতিবন্ধীদের জন্য সংরক্ষিত। তবে যেহেতু প্রতিষ্ঠানটি কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে পরিচালিত হয়, তাই এই সংক্রান্ত কোন ধরনের আপডেট সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটে ভর্তির নীতিমালা সংক্রান্ত নোটিশে পাওয়া যাবে।

অন্যান্য সুবিধা

পারফর্মেন্সের উপর ভিত্তি করে বাছাইকৃত শিক্ষার্থীরা প্রতি বছর STEP বৃত্তির সুবিধা পেয়ে থাকে। এছাড়া এখানে ই-লাইব্রেরির সুবিধা আছে যেখানে শিক্ষার্থীরা ই-বুক সহ পাঠ্যে সহায়ক বিভিন্ন তথ্য এবং ভিডিও পেতে পারে।

কোর্সের সময়সীমা

  • ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স চার বছরে হয়ে থাকে।
  • এছাড়া বিভিন্ন ট্রেড কোর্স ও রয়েছে যেগুলো কারিগরী শিক্ষা বোর্ড থেকে কন্ট্রোল করা হয়। এগুলোকে শর্ট কোর্স ও বলা হয়ে থাকে।

ক্লাসের সময়সূচী

Jessore polytechnic institute –এ ক্লাস হয় দুই শিফটে।

  • প্রথম শিফটে ক্লাস হয় সকাল ৮ টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত।
  • দ্বিতীয় শিফটে ক্লাস হয় দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৬টা পর্যন্ত।

শিক্ষা ব্যবস্থা

এখানে মোট শিক্ষাবর্ষ আটটি সেমিস্টার নিয়ে গঠিত এবং প্রতিটি শিক্ষাবর্ষ দুটি সেমিস্টার নিয়ে গঠিত। একাডেমিক কোর্স পরিচালিত হয় ক্রেডিট সিস্টেমের উপর ভিত্তি করে।

পড়াশুনার ব্যয়

সরকারি প্রতিষ্ঠান বিধায় অন্যান্য বেসরকারি পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের তুলনায় এখানে পড়াশুনার ব্যয় তুলনামূলক কম।

শিক্ষার্থীদের আবাসিক ব্যবস্থা

Jessore Polytechnic Institute

যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে দূরবর্তী শিক্ষার্থীদের আবাসনের সুবিধার্থে রয়েছে দুইটি আবাসিক হল। এর মধ্যে একটি ছাত্রাবাস এবং একটি ছাত্রী নিবাস।

  • যশোর পলিটেকনিক নতুন ছাত্রাবাস
  • কপোতাক্ষ ছাত্রীনিবাস

ছাত্র সংগঠন

যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে রয়েছে জেপিআই ব্লাড ব্যাঙ্ক, রোভার স্কাউট সহ ছাত্রদের বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক এবং ক্রিয়া সংগঠন।

ট্যাগসমূহঃ  Jessore polytechnic institute, যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট, Jessore polytechnic, Jessore polytechnic institute Result, Jessore polytechnic institute notice, Jessore polytechnic institute admission, যশোর পলিটেকনিক ভর্তি, যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট যশোর, সরকারি পলিটেকনিকে ভর্তির যোগ্যতা