জব ইন্টারভিউ প্রস্তুতি | জরুরি কিছু ইন্টারভিউ টিপস

ইন্টারভিউ প্রস্তুতি

ইন্টারভিউ প্রস্তুতি – চাকরির ইন্টারভিউ নিয়ে টেনশনে ভুগেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া ভার। মানসিক চাপ আর অপ্রতুল প্রস্তুতির কারণে ইন্টারভিউ বোর্ডের সামনে অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত ভুল হয়ে যায় অনেকেরই। আর সেই সাথে হাত ছাড়া হতে পারে কাঙ্ক্ষিত চাকরিটি। তাই তুমুল প্রতিযোগিতার এই চাকরির বাজারে ইন্টারভিউ খুবই গুরত্বপুর্ণ একটি ধাপ। আর সাফল্যের সাথে এই ধাপটি পেরোতে হলে দরকার ভালো প্রস্তুতি। যদিও চাকরির ইন্টারভিউ অনেকের কাছেই একটি প্রশ্নোত্তর পর্বের মত। কিন্তু এখানে নিজের মার্জিত এবং স্বতঃস্ফুর্ত উপস্থাপনও অনেক বড় ভূমিকা পালন করে। চাকরির ইন্টারভিউ প্রস্তুতির কিছু টিপস রইল আপনাদের জন্য।

১। নিজেকে স্বতঃস্ফুর্ত এবং আত্মবিশ্বাসী হিসেবে উপস্থাপন করুন

ভয় নয় বরং আত্মবিশ্বাস নিয়ে ইন্টারভিউ কক্ষে প্রবেশ করুন। নিয়োগকর্তাদের দিকে পূর্ণদৃষ্টি নিয়ে তাকান এবং সালাম দিন। কোন প্রশ্নের জবাব তাড়াহুড়া করে না দিয়ে একটু গুছিয়ে নিয়ে উত্তর দিন। পুরো সময়টাতে আপনার আচরণ যেন হয় স্বতঃস্ফুর্ত তবে অবশ্যই তা হবে পেশাদারিত্ব বজায় রেখে।

২। সাধারণ কিছু ইন্টারভিউ প্রশ্নের ব্যাপারে প্রস্তুতি নিয়ে রাখুন  

একটি ইন্টারভিউর সমস্ত প্রস্তুতির জন্য সমস্ত প্রশ্ন হয়তো আপনি ধারনা করে নিতে পারবেন না। কিন্তু, কমন কিছু প্রশ্ন থাকে যেগুলোর জন্য আপনি  নিজেকে প্রস্তুত রাখতে পারেন।  

এছাড়া কিছু জব আছে যেখানে ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া চলাকালীন টেস্টের ব্যবস্থা থাকতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, কোনও কম্পিউটার প্রোগ্রামিং, ডেভলপমেন্ট কিংবা অ্যানালিটিক্যাল কোন পদের জন্য ইন্টারভিউ দিতে গেলে আপনাকে কোডের লাইন লিখতে বা মূল্যায়ন করতে বলা হতে পারে। এই ধরনের টেস্টের ব্যাপারে ধারনা নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট পেশায় কাজ করে এমন কারোর সাথে যোগাযোগ করা যায়।

বেতন কত প্রত্যাশা করছেন এটা নিয়েও আপনাকে প্রশ্ন করতে পারে। এছাড়া আরও কিছু টপিক আছে যেগুলো সাধারণত ইন্টারভিউতে করা হয়। এরকম কিছু প্রশ্ন হল-  

  • নিজের সম্পর্কে বলুন
  • আপনার দুর্বলতা কি?
  • ৫/১০ বছর পর নিজেকে কোথায় দেখতে চান?
  • কেন আপনাকে নিয়োগ দিব?
  • আমাদের প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে কি জানেন?

জব ইন্টারভিউ প্রস্তুতি

৩। আপনার বলার ভঙ্গি এবং দেহভঙ্গি সুসংযত রাখুন

সাক্ষাৎকার প্রক্রিয়া চলাকালীন নিজের একটি ইতিবাচক এবং স্থায়ী ধারণা তৈরি করা গুরুত্বপূর্ণ। আপনি আত্মবিশ্বাসী, দৃঢ় এবং বন্ধুত্বপূর্ণ বাচনভঙ্গির মাধ্যমে এটি করতে পারেন। এবং এটি রপ্ত করার জন্য পরিবারের সাথে বা আয়নার সামনে এগুলি প্রাকটিস করতে পারেন। এক্ষেত্রে বিশেষ করে আপনার হাসি, হ্যান্ডশেক এবং হাঁটার ধরনে মনোযোগ দিন।

৪। মার্জিত পোশাক পড়ুন

কোন ইন্টারভিউতে আবশ্যই ফর্মাল পোশাকে উপস্থিত হোন। ক্যাজুয়াল পোশাকে ইন্টারভিউতে উপস্থিত হবেন না কখনোই। কারণ এখানে যোগ্যতা এবং আচার আচরণের পাশাপাশি আপনার পুরো গেটআপও আপনার ব্যক্তিত্বকে উপস্থাপন করবে।

৫। মনোযোগ দিয়ে জব ডেসক্রিপশনটি পড়ুন

ইন্টারভিউর প্রস্তুতি নেয়ার সময় আপনার আবেদন করা পদটির জন্য দেয়া জব ডেসক্রিপশনটিকে গাইড হিসেবে ব্যবহার করুন। এর ফলে আপনি বুঝতে পারবেন পদটির আদর্শ প্রার্থীর জন্য কোন ধরনের যোগ্যতা, গুণাবলী এবং ব্যাকগ্রাউন্ড নিয়োগকর্তা চাইছেন। যা সাক্ষাৎকারের সময় জিজ্ঞাসা করা প্রশ্নগুলি সম্পর্কে আপনাকে ধারণা দিতে পারবে ফলে নিয়োগকর্তাদের কাছে আপনি নিজেকে আদর্শ প্রার্থী হিসেবে উপস্থাপন করতে পারেন।

৬। সাক্ষাৎকারে সময় প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করুন

ইন্টারভিউতে শুধুমাত্র প্রশ্নের উত্তর দেয়ার জন্য নিজেকে প্রস্তুত না করে বরং নিয়োগকর্তাদের জন্যেও কিছু সুচিন্তিত প্রশ্ন তৈরি করুন। এতে করে আপনার প্রতিষ্ঠানটি ও আবেদনকৃত পদটি সম্পর্কে কিরকম ধারনা আছে এবং আপনার আগ্রহ সম্পর্কে তাদের একটি ধারনা তৈরি হবে, যা আপনার সাক্ষাৎকারে ইতিবাচক প্রভাব রাখবে।  

৭। ইন্টারভিউ প্রস্তুতি হিসেবে প্রতিষ্ঠানটি সম্পর্কে ধারনা রাখুন

কোন ইন্টারভিউর প্রস্তুতির ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানটি সম্পর্কে জানা খুবই গুরত্বপূর্ণ একটি পয়েন্ট। এর ফলে নিয়োগকারীদের প্রশ্নের উত্তর দিতে আপনার সুবিধা হবে এবং তাদেরকেও আপনি কিছু প্রশ্ন করার গ্রাউন্ড পাবেন। বিশেষ করে নিচের দুইটি বিষয় সম্পর্কে জানুন-

•      প্রতিষ্ঠানটির পণ্য বা সেবা সম্পর্কে ধারনা রাখুন। প্রতিষ্ঠানটি কি ধরনের পণ্য বা সেবা নিয়ে কাজ করছে সে সম্পর্কে ধারনা রাখুন।

•      আবেদনকৃত পদটির ঐ প্রতিষ্ঠানে কি ধরনে ভূমিকা পালন করে এবং কি কি ধরনের দায়িত্ব সম্পাদন করতে হয় সে সম্পর্কে পরিষ্কার ধারনা রাখার চেষ্টা করুন। এর জন্য কাজের বিবরণটি ভালো ভাবে পড়ুন।

৮। মক ইন্টারভিউ অনুশীলন করুন

ইন্টারভিউতে বসার আগে বন্ধু বা পরিবারের সদস্যদের সাহায্য নিয়ে ঘরে অনুশীলন করুন। এই ধরনের অনুশীলনমূলক ইন্টারভিউ বা মক ইন্টারভিউ আপনার আত্মবিশ্বাস বাড়াবে এবং নিয়োগদাতাদের সামনে আপনাকে স্বাচ্ছন্দ্যে কথা বলতে সাহায্য করবে।

৯। সিভির হার্ডকপিসহ প্রয়োজনীয় কিছু জিনিস সাথে রাখুন

নিয়োগকর্তাদের কাছে যদিও আপনার সিভির একটি ডিজিটাল কপি থাকে, কিন্তু আপনি যদি হার্ড কপি তাদের সামনে উপস্থাপন করেন তাহলে তারা বুঝতে পারবেন যে আপনি একজন গোছালো ব্যক্তি। এক্ষেত্রে প্রত্যেক ইন্টারভিউয়ারের জন্য একটি করে প্লাস আপনার জন্য বাড়তি একটি সিভির হার্ডকপির ব্যবস্থা করে রাখা দরকার। সেই সাথে রাখুন প্রয়োজনীয় সার্টিফিকেট, নোটবুক, কলম।

প্রয়োজনে আপনার সিভিটি আরও একবার পড়ুন এবং যে কোনও ফাঁক বা অসঙ্গতির জন্য কি উত্তর হতে পারে তা নিয়ে চিন্তা করুন। উদাহরণস্বরূপ, দীর্ঘ দিন যদি আপনি চাকরি না করে থাকেন তবে সেটা কেন, এই ব্যাপারে যুক্তিযুক্ত একটি উত্তর প্রস্তুত রাখুন।   

১০। ভ্রমণের আগাম প্রস্তুতি নিয়ে রাখুন

সঙ্গত কারণেই চাকরীর ইন্টারভিউ যে কারোর জন্যই স্ট্রেসের ব্যাপার, তার উপর সঠিক সঠিক জায়গায় ইন্টারভিউর জন্য উপস্থিত হওয়াটা অনেক ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জ হতে পারে। যদি আপনার ইন্টারভিউর স্থানটি হয় অপরিচিত কোন জায়গায় বা সম্পূর্ণ নতুন কোন শহরে তবে রাস্তা খুঁজে পেয়ে সঠিক সময়ে কাঙ্ক্ষিত স্থানে পোঁছানোটা উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

তাই এক্ষেত্রে বাড়তি উদ্বেগ এড়াতে আগে থেকেই কিছু প্রস্তুতি আপনি নিয়ে রাখতে পারেন। যেমন-

  • তাড়াতাড়ি রওনা দিনঃ হাতে বেশ খানিকটা সময় রেখেই ইন্টারভিউর দিন রওনা দিন। এতে করে রাস্তার জ্যাম, কোন ধরনের দুর্ঘটনা বা সাক্ষাতের শান খুঁজে পেতে দেরি হলেও সঠিক সময়ে ইন্টারভিউর জন্য উপস্থিত থাকায় সফল হবেন আপনি।
  • সাক্ষাৎকার সংক্রান্ত যোগাযোগের তথ্য হাতের কাছে রাখুনঃ অনেক সময় হাতে প্রচুর সময় রেখে রওনা দেয়ার পরও অনিয়ন্ত্রিত পরিস্থিতি আপনাকে দেরি করিয়ে দিতে পারে। এরকম পরিস্থিতিতে আপনার ইন্টারভিউ কোওর্ডিনেটরকে কল করুন এবং তাদের পরিস্থিতি সম্পর্কে জানান।  বেশিরভাগ লোকেরা এই পরিস্থিতিতে সহানুভূতিশীল হয়ে থাকেন। তবে কখনোই তাদের জানানো ছাড়া বা যৌক্তিক ব্যাখ্যা ছাড়া ইন্টারভিউতে দেরীতে উপস্থিত হবেন না।
  • লোকেশনটি সম্পর্কে আগাম খোজ নিনঃ বেশিরভাগ ইন্টারভিউই বেশ কয়েকদিন বা সপ্তাহ খানেক আগে শিডিউল করা হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে আপনি ইন্টারভিউ লোকেশনটির ব্যাপারে আগাম খোঁজ খবর করে বিস্তারিত জেনে নিতে পারেন। ভালো হয়, যদি জায়গাটি আপনার অপরিচিত হয় তবে আগেই একবার লোকেশনটি ঘুরে আসলে। 

ট্যাগসমুহ

ইন্টারভিউ প্রস্তুতি, কিভাবে ইন্টারভিউ দিতে হয়, ইন্টারভিউ প্রশ্ন, ইন্টারভিউ মানে কি, আপনি কেন এই জব টি করতে চান, ইন্টারভিউ পোশাক, ইন্টারভিউ টিপস, ক্যারিয়ার প্রস্তুতি, interview preparation tips, common interview questions, interview tips, how to prepare for an interview, interview tips for students